বাঙালিয়ান ডেক্সঃ

বিএনপির স্থানীয় কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, ‘এখন নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ তৈরি হয়নি। এই পরিস্থিতিতে নির্বাচন হলে শেখ হাসিনা আজীবন প্রধানমন্ত্রী। আর বেগম খালেদা জিয়া আজীবন কারাবন্দি থাকবেন।’

শুক্রবার বিকালে রাজশাহীর মাদ্রাসা মাঠে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বিভাগীয় মহাসমাবেশে এ কথা বলেন তিনি। দুপুর ২টার দিকে শুরু হয় এই সমাবেশ।
জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহবায়ক ড. কামাল হোসেন ছাড়া অন্য শীর্ষ নেতারা সমাবেশে অংশ নিয়েছেন। বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বিভাগীয় সমন্বয়কারী মিজানুর রহমান মিনুর সভাপতিত্বে সমাবেশ চলছে।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘এই পরি্িস্থতিতে নির্বাচন হলে তারেক রহমানকে আজীবন নির্বাসিত থাকতে হবে। তিনি দেশে ফিরতে পারবেন না। এই মঞ্চে যার আছেন তাদের সাবেক বিচারপতি এসকে সিনহার মতো হাতে কাগজ ধরিয়ে দিয়ে বিদেশে পাঠিয়ে দেবে সরকার।’

তিনি বলেন, ‘আমরা গণতন্ত্রের পক্ষে। এখন গণতন্ত্র নেই দেশে। এই গণতন্ত্র উদ্ধার করতে হলে একটি অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন দরকার।’

আর ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান নির্বাচন কমিশনের অধীনে অবাধ নির্বাচন সম্ভব নয়’ বলে দাবি করেন গয়েশ্বর।

বেগম জিয়াকে কারাগারে রেখে বিএনপি নির্বাচনে যাবে না উল্লেখ করে বিএনপির এ নেতা বলেন, ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সাত দফা বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এই সাত দফা দাবি বাস্তবায়ন না হলে ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে যাবে না।
সমাবেশ থেকে গণতন্ত্রের যুদ্ধে দলমত নির্বিশেষে সবাইকে অংশ নেয়ার আহবান জানান গয়েশ্বর।

ঢাকাটাইমস/