মানিক হোসেন ঃ

কয়েকদিন ধরে আপন দুই ভাইয়ের মধ্যে জমি ভাগভাটোয়ারা নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে ছোট ভাই ইয়াকুব আলী (৪৫) কে পিটিয়ে আম গাছের সাথে ঝুঁলিয়ে রাখা মৃত দেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ । এ ঘটনায় অভিযুক্ত বড় ভাই জাবেদ আলীসহ তার পরিবার পলাতক আছে বলে জানাগেছে।

বুধবার সকাল ৬ টার দিকে চিরিরবন্দর উপজেলার ফতেজংপুর ইউনিয়নের ঠাকুঁরের হাট উত্তর পলাশবাড়ীর গ্রামের মাওলানা পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ইয়াকুব আলী উপজেলার একই গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে।

নিহতের স্ত্রী আর্জিনা বেগমসহ স্থানীয়রা জানান , তার ভাসুর জাবেদ আলীর সাথে জমি ভাগাভাগির বিষয় নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে তাদের বিরোধ চলছে। এরই মধ্যে জাবেদ আলীর ও তার জামাতা মিলে আমার স্বামী ইয়াকুব আলীকে কয়েকবার পিটিয়ে আহত করে। এ বিষয় নিয়ে আমরা একটিা মামলা দায়ের করি । এরি জের ধরে মঙ্গলবার দিনগত রাত ১১টার দিকে শ্যালকের বাড়ি থেকে নিজ বাড়িতে ফেরার সময় রাস্তায় ইয়াকুব আলীকে জাবেদ আলী ও তার জামাতাসহ আরোও কয়েকজন মিলে আটক করে। পরে আমার স্বামীকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করে তারা। তারপর তারেই বাড়ির সামনে ছোট একটি আম গাছের সাথে লাশ ঝুঁলিয়ে রাখে ।

চিরিরবন্দর থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) সুব্রত কুমার সরকার মৃতদেহ উদ্ধারের সংবাদ নিশ্চিত করে বলেন , স্থানীয়দের সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনা স্থলে পৌচ্ছে প্রাথমিক সুরতহাল তৈরী করেছে । রির্পোট দেখে মনে হচ্ছে তাকে শ্বাসরোধ করে মারা হয়েছে। মৃতদেহ উদ্ধার করে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে । এ ব্যাপারে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হবে বলেও তিনি নিশ্চিত করেছেন।