রিয়াল মাদ্রিদ অধ্যায়ের ইতি টেনে জুভেন্টাসে পাড়ি জমালেও স্পেনের স্মৃতি ভুলতে পারছেন না পর্তুগিজ তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।তিনি চাইলেও তাকে ভুলতে দিচ্ছে না স্পেনের আদালত! জরিমানার পুরো অর্থ পরিশোধ করেও কর ফাঁকির মামলা থেকে মুক্তি মিলছে না জুভেন্টাস তারকার।

স্পেন থেকে যাওয়ার আগে কর ফাঁকির মামলার জরিমানা পরিশোধ করে গেছেন রোনালদো। কিন্তু সশরীরে নয়, আইনজীবীর মাধ্যমে। সেটাই বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে। মামলা অপসারণ করতে আদালতে হাজির হওয়া ছাড়া বিকল্প পথ খোলা নেই সিআর সেভেনের।

রিয়াল মাদ্রিদে থাকতে কর ফাঁকির অপরাধে দুই বছর জেল হয় রোনালদোর। জেল এড়াতে ১৪.৭ মিলিয়ন ইউরো জরিমানার পুরোটাই পরিশোধ করেন পর্তুগিজ অধিনায়ক। বিশ্বকাপের কারণে রাশিয়ায় ছিলেন বলে আইনজীবী হোসে আন্তোনিওর মাধ্যমে জরিমানার অর্থ জমা দেন স্পেনের কোষাগারে। কিন্তু তাতে সমস্যার সমাধান হয়নি।

স্পেনের আদালতের নিয়ম অনুযায়ী জরিমানা পরিশোধের সময় সশরীরে হাজির থাকতে হয় আদালতে। রোনালদো সে সময় আদালতে হাজির না থাকায় মামলার নিষ্পত্তি হয়নি বলে মনে করেন স্পেনের আদালত। আগামী ১৪ জানুয়ারির মধ্যে তাই রোনালদোকে হাজিরা দিতে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। নয়তো আদালত অবমাননার মামলায় ফাঁসবেন তিনি।

হাজিরা সশরীরেই হতে হবে, নির্দেশ এমনই। আবার বিকল্প পথও সামনে আসছে। রিয়ালেরই আরেক পর্তুগিজ সাবেক ফ্যাবিও কোয়েন্ত্রাও একই ধরনের মামলায় আদালতে হাজির হয়েছিলেন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে। রোনালদোর আইনজীবী চেষ্টা করছেন একই উপায়ে পরিস্থিতি সামলাতে। আদালত রাজি না হলে স্পেনে ঘুরে যাওয়া ছাড়া পথ খোলা থাকবে না সিআর সেভেনের ।