মোঃ নুরনবী ইসলাম, নিজস্ব প্রতিবেদক

দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার ছাতিয়ানগড় গ্রামের দরিদ্র বিধবা নারী শেফালী রায়ের ৬০ শতাংশ জমির পাকা ধান কেটে মাড়াই করে দিয়েছে উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

আজ ১৪ মে বৃহস্পতিবার সকাল ৮ টা হতে দুপুর সাড়ে ৩ টা পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডাকে সাড়া দিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক সফিউল আযম চৌধুরী লায়ন ও দিনাজপুর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তানভীর ইসলাম রাহুলের নির্দেশনায় খানসামা উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক রেজাউল করিমের নেতৃত্বে প্রায় অর্ধ শতাধিক ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সেই বিধবা নারীর ধান কাটা ও মাড়াই শেষে তার ঘরে ধান তুলে দেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আংগারপাড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহ্বায়ক লিটন রহমান, ভেড়ভেড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মোস্তাওফিক আহম্মেদ শামীম ও সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ ইসলাম, খামারপাড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুুুুগ্ন আহবায়ক শামীম ইসলাম, আঙ্গারপাড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতা এস এম রকি সহ বিভিন্ন ইউনিয়ন, ওয়ার্ড ও কলেজ শাখা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ।

বিধবা নারী শেফালী রায় বলেন, স্থানীয় শ্রমিকরা দেশের বিভিন্ন জায়গায় ধান কাটতে যাওয়ায় ও করোনাভাইরাসের কারণে এলাকায় শ্রমিক সংকট দেখা দেয়। পরে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা এসে আমার ৬০ শতক জমির ধান কেটে মাড়াই করে ধান ঘরে তুলে দেন।

উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক রেজাউল করিম বলেন, আমরা দেশের এই ক্রান্তিকালে অসহায় কৃষকের পাশে দাঁড়িয়েছি। ওই কৃষানী শ্রমিক সংকটের কারনে জমির ধান কাটতে না পারায় আমাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে উদ্যোগ নিয়ে স্বেছাশ্রমে ধান কেটে মাড়াই করে দিয়েছি। সংকটে থাকা কৃষকের উপকার করতে পেরে আমাদের ভালো লাগছে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সফিউল আযম চৌধুরী লায়ন বলেন, দূর্যোগের এই সময় উপজেলা ছাত্রলীগ অসহায় কৃষকের ধান কেটে দিচ্ছে এটি ভাল উদ্যোগ। দূর্যোগের সময় কৃষকদের পাশে এসে সহযোগিতা করায় তাদের ধন্যবাদ জানাই।