মোঃ নুরনবী ইসলাম, নিজস্ব প্রতিবেদক

দিনাজপুরের খানসামা উপজেলায় আন্জুয়ারা (৩৫) নামে এক বাক প্রতিবন্ধী নারীর লাশ উদ্ধার ও হত্যায় জড়িত থাকার সন্দেহে দুই প্রতিবেশীকে আটক করেছে থানা পুলিশ।

২৫ মার্চ বুধবার সকালে খানসামা ডিগ্রী কলেজের পার্শ্বে ভূট্টার ক্ষেত হতে এ লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত আন্জুয়ারা উপজেলার আলোকঝাড়ী ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের আব্দুর রহমানের ছোট মেয়ে। নিহত নারী দুই সন্তানের জননী।

এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ওসি (তদন্ত) আইজি পদকপ্রাপ্ত এস.এম মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে হত্যায় জড়িত সন্দেহে প্রতিবেশী তাজউদ্দীন (৪৫) ও কালাম (৪২) কে আটক করেন থানা পুলিশ।

নিহত নারীর ছোট ভাই সাহেব জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে আমার বোনকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিলো না। আমরা আত্বীয় স্বজন সহ বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুজি করেছি। বুধবার সকালে বাড়ির পাশের ভুট্টা ক্ষেতে কাজ করা কয়েকজন শ্রমিক জানালে আমরা এখানে ছুটে এসে দেখি আমার বোনের গলায় তার দিয়ে তাকে হত্যা করে ফেলে রেখে গেছে। এই ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মো.কামাল হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে গলায় বৈদ্যুতিক তার দিয়ে পেচানো অবস্থায় লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। পরিবারের দাবিতে এ ঘটনায় সম্পৃক্ত সন্দেহে দুই জনকে আটক করা হয়েছে।