প্রকাশিত : ২৪ অক্টোবর ২০১৮,

নীলফামারীর সদরের ঢেলাপীর হাটে অভিযান চালিয়ে খাঁচাই বন্দি বিভিন্ন প্রজাতের পাখি উদ্ধার করে খোলা আকাশে অবমুক্ত করা হয়েছে। ঘুঘু, টিয়া, শালিক, ময়নাসহ বিভিন্ন প্রজাতির পাখিগুলিকে খোলা আকাশে অবমুক্ত করা হয়। এসময় পাখি শিকারী এবং এই চক্রের সাথে জড়িত কারবারিরা পালিয়ে যায়।

মঙ্গলবার (২৩ অক্টোবর) বিকাল ৪টায় নীলফামারী জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরিনের নেতৃত্বে হাটে অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে আটক ওই পাখিগুলোকে উদ্ধার করে পরে সৈয়দপুর বিমানবন্দরে খোলা আকাশে অবমুক্ত করেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক)’এর কমিশনার (তদন্ত) এএফএম আমিনুল ইসলাম।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) এ এম গোলাম কিবরিয়া, সহকারি কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার, সাংবাদিক জসিম উদ্দিন, এম আর মহসিন, এম কে আনোয়ার, পাখি ও পরিবেশ নিয়ে কাজ করা সেচ্ছাসেবী সংগঠন সেতুবন্ধনের সভাপতি আলমগীর হোসেন, কার্যকরী সদস্য মাসুম বিল্লাহ, সাংবাদিক ও সধীজন প্রমুখ।
দুদকের কমিশনার (তদন্ত) এএফএম আমিনুল ইসলাম বলেন, অবৈধ ভাবে পাখি শিকার ও ক্রয় বিক্রয় দন্ডনীয় অপরাধ। তাই পাখি শিকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য জেলা প্রশাসনকে এই অভিযান অব্যাহত রাখতে হবে।

জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরিন বলেন, বহুদিন থেকে ঢেলাপীর হাটে প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে অবাধে বিভিন্ন প্রজাতির পাখি ক্রয় বিক্রয় করে আসছিল একটি চক্র। এলাকাবাসীর অভিযোগে সেখানে অভিযান পরিচালন করে খাঁচাই বন্দি পাখিগুলোকে খোলা আকাশে অবমুক্ত করা হয়। এছাড়াও এই চক্রের সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করার জন্য পুলিশকে বলা হয়েছে।