ডেস্ক রিপোর্ট

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ঘ’ ইউনিটের পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে অনশনরত আইন বিভাগের ছাত্র আখতার হোসেন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাকে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বেলা দুইটার বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর অধ্যাপক গোলাম রব্বানীর সামনেই অসুস্থ হয়ে পড়েন আখতার। পরে তাকে ঢাকা মেডিকেলে নেয়া হয়। তার সঙ্গে আছেন আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক রহমত ‍উল্লাহ, ছাত্রলীগের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন।

গত ১২ অক্টোবর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষার আগের দিনই প্রশ্ন ‘ফাঁস’ হয়েছে বলে অভিযোগ উঠে।  বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তা স্বীকারও করে। তবে এই অভিযোগের মধ্যেই মঙ্গলবার ফলাফল প্রকাশ করা হয়। ২৬.২১ শতাংশ শিক্ষার্থী এতে পাস করেন।

এই পরীক্ষা বাতিলসহ চার দফা দাবিতে গত মঙ্গলবার দুপুর থেকে ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয়ের টিএসসির সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের সামনে আমরণ অনশন শুরু করেন আখতার হোসেন। তিন বিশ্ববিদ্যোলয়ের আইন বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।

এর আগে বেলা পৌনে ‍দুইটার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক গোলাম রব্বানী রাজু ভাস্কর্যে আসেন। ‘ঘ’ ইউনিটের পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে অনশনরত আখতারকে তিনি বোঝাতে থাকেন। আখতার পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁস হয়েছে কি না সেটা প্রক্টরের কাছে জানতে চান। এসময় তিনি হাত-পা ছুড়তে থাকলে তাকে সবাই ধরে রিকশায় করে ঢাকা মেডিকেলের দিকে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে প্রক্টর ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘আমরা গিয়েছিলাম। প্রশ্ন ফাঁসের বিষয়টি আমরা পর্যালোচনা করছি বলে তাকে বুঝেয়েছি। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য দেশের বাইরে আছেন। সেই সময় পর্যন্ত অপেক্ষা করতে বলেছি। সে অসুস্থ বোধ করছে বলে আমরা তাকে ঢাকা মেডিকেলে নেওয়ার ব্যবস্থা করেছি। সে এখন ডাক্তারদের তত্ত্বাবধানে আছে।’
সূত্র: ঢাকা টাইমস