প্রকাশিত : ২৪ অক্টোবর ২০১৮,

সিলেটে পৌঁছেই হযরত শাহজালাল (রহ.) ও শাহপরান (রহ.)-এর মাজার জিয়ারত করলেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা।

জিয়ারতের সময় আরও ছিলেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ড. আবদুল মঈন খান, জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব, সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ড. এনামুল হক চৌধুরী, এমএ হক, খন্দকার আবদুল মোকতাদির, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী প্রমুখ।

এর আগে নেতারা ভোর ৫টার ফ্লাইটে রওনা করে ৬টায় সিলেট বিমানবন্দরে নামেন। সেখান থেকে সরাসরি মাজার জিয়ারতে যান তারা।

দুই আউলিয়ার মাজার জিয়ারত শেষে নেতারা হোটেলে বিশ্রাম শেষে সমাবেশে যোগ দেবেন।

সিলেট নগরীর রেজিস্ট্রি মাঠে দুপুর ২টায় সমাবেশ শুরু হবে। এতে প্রধান অতিথি গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন ও প্রধান বক্তা বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সভাপতিত্ব করবেন সিলেট সিটির মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

এর আগে গত ২৩ অক্টোবর সিলেট রেজিস্ট্রার মাঠে সমাবেশ করার অনুমতি চায় ঐক্যফ্রন্ট। ওই দিন অনুমতি না পেয়ে পর দিন একই স্থানে সমাবেশ করার জন্য অনুমতি চাওয়া হয়।

সে আবেদনও ঝুলিয়ে রাখে পুলিশ প্রশাসন। এ অবস্থায় রোববার দুপুরে হাইকোর্টে রিট করেন বিএনপি নেতা আলী আহমদ। সোমবার ওই রিটের শুনানির তারিখ ধার্য করেন আদালত। তবে শুনানির আগেই পুলিশ সমাবেশের অনুমতি দেয়।

গত ১৩ অক্টোবর বিএনপিকে নিয়ে গণফোরামের সভাপতি, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার আহ্বায়ক ও বিশিষ্ট আইনজীবী ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আত্মপ্রকাশ হয়। ঐক্যপ্রক্রিয়া, নাগরিক ঐক্য ও জেএসডি যুক্ত রয়েছে ঐক্যফ্রন্টে।

সূত্র:যুগান্তর