বাঙালিয়ান ডেক্স:

 

সংলাপ, আন্দোলন আর নির্বাচন একসঙ্গে চলবে বলে জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। তিনি বলেছেন, এটা আমাদের গণতান্ত্রিক কর্মসূচি।

বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বিএনপি আয়োজিত মানববন্ধনে এই কথা বলেন তিনি।

গতকাল মঙ্গলবার জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার আপিল রায়ে খালেদা জিয়ার সাজা পাঁচ বছর থেকে বাড়িয়ে ১০ বছর করে হাই কোর্টে। তার আগের দিন জিয়া দাতব্য ট্রাস্ট মামলার রায়ে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত খালেদা জিয়াকে সাত বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেয় বিচারিক আদালত। দলীয় প্রধানের সাজা বাতিল ও তার মুক্তির দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন করে বিএনপি।

মানববন্ধনে মওদুদ আহমদ বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে ক্ষমতাসীন দলের মন্ত্রীরা সংলাপে নাকচ থাকলেও এখন দেশের মানুষের মনের কথা উপলব্ধি করায় তাদের ধন্যবাদ জানাই।’

তিনি বলেন, ‘এতদিন ধরে যে কৌশল নিয়ে আমরা শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করেছি সেটি ফলপসূ হয়েছে। সরকার সংলাপ করতে সম্মত হয়েছে।’

সাত দফার আলোকেই সংলাপে আলোচনা হবে জানিয়ে বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ নেতা বলেন, ‘সংলাপ আন্দোলন নির্বাচন একসঙ্গে চলবে। যতদিন পর্যন্ত দাবি আদায় না হবে ততদিন পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে।’

মানববন্ধনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান, ভাইস-চেয়ারম্যান বেগম সেলিমা রহমান, বরকত উল্লাহ বুলু, মো. শাজাহান, রুহুল আলম চৌধুরী, আব্দুল আউয়াল মিন্টু, ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন,চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, আব্দুস সালাম, আবুল খায়ের ভূইয়া, যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, বিশেষ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিপন উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকা টাইমস