শপথ নেওয়ার ছয় ঘণ্টা যেতে না যেতেই নিজের দল গণফোরাম থেকে বহিষ্কার হলেন ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচিত সুলতান মোহাম্মদ মনসুর। তার বিরুদ্ধে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ এনেছে ঐক্যফ্রন্ট প্রধান কামাল হোসেনের দল গণফোরাম।

বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে মনসুরের বহিষ্কারের কথা জানায় গণফোরাম।

এর আগে সকাল এগারোটায় জাতীয় সংসদের শপথ কক্ষে সুলতান মনসুরকে শপথ বাক্য পাঠ করান স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী।

শপথের পর সুলতান মনসুর সাংবাদিকদের বলেন, ‘সকল কথার উত্তর আমি দেবো না। আমি জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের একজন প্রতিনিধি। কাজেই জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রতিনিধি হিসেবে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

‘উনারা (দলের নেতারা) যা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন উনারা নিবেন। ‘তবে একটা কথা বলতে পারি জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষনেতাকে জানিয়েই আমি এটা করেছি।’

৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত হন গণফোরাম নেতা সুলতান মনসুর। দলের নির্দেশ অমান্য করেই তিনি আজ সংসদ সদস্যের শপথ নেন।

একাদশ জাতীয় নির্বাচনে ঐক্যফ্রন্ট থেকে ৮ প্রার্থীর মধ্যে ধানের শীষ নিয়ে ৭ জন বিজয়ী হন। তাদের মধ্যে বিএনপির বিজয়ী ৬ প্রার্থী শপথ নেবেন না বলে দলটির পক্ষ থেকে একাধিকবার জানানো হয়।

আর সিলেট-২ আসন থেকে নির্বাচিত গণফোরামের মুকাব্বির খানের শপথ নেওয়ার কথা থাকলেও তিনি আপাতত শপথ নেবেন না বলে বুধবার তার দল থেকে জানানো হয়।