মোঃ নুরনবী ইসলাম, নিজস্ব প্রতিবেদক

দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার ভেড়ভেড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেনকে বহিস্কার, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক লিটন ইসলাম লিটু ও খামারপাড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহবায়ক সবুজ হোসেনকে শোকজের প্রতিবাদ এবং সম্প্রতি ধীমান দাসের দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ শনিবার দুপুরে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তির পর বিকেলে উপজেলা ছাত্রলীগের সর্বস্তরের নেতাকর্মীবৃন্দের ব্যানারে উপজেলার পাকেরহাটে এ বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

বিক্ষোভ মিছিলের পর দলীয় কার্যালয়ের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক রেজাউল করিম, বর্তমান উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক লিটন ইসলাম লিটু, খামারপাড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহবায়ক সবুজ হোসেন, যুগ্ন আহবায়ক আসাদুজ্জামান, গোয়ালডিহি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক হারুনর রশীদ, খানসামা ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সুশান্ত মহন্ত, আঙ্গারপাড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক চন্দ্রদ্বীপ, উজ্জ্বল রায়, সুমন শাহ্ প্রমুখ।

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বলেন, মূল ঘটনার বিষয়ে তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ না করে ও তদন্ত ছাড়াই অন্যের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে ছাত্রলীগ নেতা সাজ্জাদ হোসেনের বহিষ্কার এবং লিটন ও সবুজকে শোকজের আদেশ প্রত্যাহার করে পুনঃতদন্তের জোর দাবি জানান। এছাড়াও ধীমান দাসের দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

উল্লেখ্য যে, ফেসবুকে মাদকসহ ছাত্রলীগ নেতার স্ট্যাটাস শেয়ার দেওয়াকে কেন্দ্র করে উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি ও আঙ্গারপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ধীমান দাসের ওপর হামলার ঘটনায় গত ৩০ জুন খানসামা থানায় ৭ জন নামীয় আসামী করে অজ্ঞাত নামা ৩০/৩৫ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়। এ ঘটনায় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে মামলার ৩ নং আসামী ভেড়ভেড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেনকে বহিস্কার, ২ নং আসামী উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক লিটন ইসলাম লিটু ও ৪ নং আসামী খামারপাড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহবায়ক সবুজ হোসেনকে শোকজ করেন।