সজিবুল ইসলাম হৃদয়, লালপুর (নাটোর):

 

৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন সামনে রেখে নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া) অাসনের প্রতিটা চায়ের দোকানগুলোতে চলছে একই আলোচনা- কে পাচ্ছেন দলের মনোনয়ন? বিশেষ করে ক্ষমতাসীন জোট আওয়ামীলীগ সহ তাদের শরীক দলগুলোর মধ্যে এই আলোচনা সীমাবদ্ধ নেই, এখন সাধারন ভোটারদের মধ্যেও অালোচনার মূল কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে।

নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া) আসনে আওয়ামীলীগ বা মহাজোটের প্রার্থী কে হচ্ছেন এমন মুখ্য আলোচনা এখন সর্বত্র। জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও বর্তমান সাংসদ এ্যাড.অাবুল কালাম অাজাদ একজন হেভিওয়েট প্রার্থী।

এই দলের অপর প্রার্থীর মধ্যে রয়েছেন জেলা আওয়ামীলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বকুল, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের উপদেষ্টা কর্নেল রমজান আলী, কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সাবেক সদস্য সেলভিয়া পারভিন লেনি, সংরক্ষিত আসনের সাবেক সংসদ সদস্য শেফালি মমতাজ, কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আতিকুল ইসলাম আতিক, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মাজেদুর রহমান চাদ, কামরাঙ্গীচর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আনিছুর রহমানসহ ১৭ জন। তারা প্রত্যেকেই দলীয় মনোনয়ন পত্র উত্তোলন করে জমা দিয়েছেন।

দলের মধ্যে উপদলীয় কোন্দাল থাকায় এই মূহুর্তে কর্মী সমর্থক ও সাধারণ ভোটার দের অালোচনার মূল কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে নাটোর-১ অাসনে অাওয়ামী লীগ বা মহাজোট থেকে কে পাচ্ছেন মনোনয়ন?

এদিকে মহাজোটের শরীক দল ওর্য়াকার্স পার্টির হেভিওয়েট প্রার্থী অধ্যক্ষ ইব্রাহীম খলিল মনোনয়ন পত্র উত্তোলন করেছেন। তার পক্ষে দলের নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা ঘুরছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে।

এই আসনে বিএনপির একধিক প্রার্থী থাকলে সাবেক ক্রিয়া প্রতিমন্ত্রী ফজলুর রহমান পটলের সহধর্মিণী অধ্যক্ষ (অবঃ) কামরুন্নাহার শিরিনের মনোনয়ন প্রায় নিশ্চিত।

ঐক্যফ্রন্টের অন্য কোন শরীক দলের প্রার্থী নেই। সাধারন ভোটার সহ জোট-মহাজোট বা ঐক্যজোট ও ফ্রন্টের নেতা কর্মী ও সমর্থকরা কেন্দ্রের ঘোষনার অপেক্ষায় রয়েছেন। তাই নির্বাচনী মাঠে নেই কোন উত্তাপ বা উত্তেজনা।