ইতালির রাজধানী রোমে গোপালগঞ্জ জেলা সমিতির নবনির্বাচিত কার্যকরী পরিষদের অভিষেক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়েছে।

‘গোপালগঞ্জ জেলা সমিতির প্রতিটি পদক্ষেপ থাকবে বঙ্গবন্ধুকে ঘিরে, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও দর্শন এই প্রবাসের মাটিতে প্রচার করার থাকবে এ সংগঠনের মূল লক্ষ্য’- গোপালগঞ্জ জেলা সমিতির সভাপতি হারুন সিকদারের সভাপতিত্বে ও গোপালগঞ্জ জেলা সমিতির সিনিয়র সহ-সভাপতি হেকমত আলী সুজনের পরিচালনায়
প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ সমিতির সভাপতি আফতাব বেপারী।

বিশেষ অতিথি ছিলেন ইতালি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব হাসান ইকবাল, ইতালি আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সাইদ খান, সহ-সভাপতি হাবীব চৌধুরী, শরীয়তপুর জেলা সমিতির সভাপতি আব্দুর রব ফকির ও সাধারণ সম্পাদক আক্তার হোসেন মামুন।

বাংলাদেশ সমিতির সভাপতি আফতাব বেপারী বলেন, এই জেলা সমিতি তাদের কর্ম দক্ষতা দিয়ে এগিয়ে থাকবে। মানবতার কল্যাণে কাজ করবে এক্ষেত্রে বাংলাদেশ সমিতি সব সময়ই সহযোগিতা করবে।

ইতালি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাসান ইকবাল বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার যোগ্য উত্তরসূরী যার হাত দিয়ে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেলে পরিচিত হয়েছে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই গোপালগঞ্জ তথা বৃহত্তর ফরিদপুরের গর্ব।

তিনি আরো বলেন, দেশের এই উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতেই আমরা যারা মুজিব সৈনিক আছি সকলে ঐক্যবদ্ধভাবে নির্বাচনের সময় কাজ করব যেন পুনরায় আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসে এবং বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ গড়ে তোলার জন্য কাজ করতে পারে।

আর ও বক্তব্য রাখেন বৃহত্তর ঢাকা সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক ও অল ইউরোপীয় বাংলা প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. মনিরুজ্জামান মনির, ইতালি মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নয়না আহমেদ, মুন্সীগঞ্জ বিক্রমপুর সাবেক সভাপতি মুক্তার জামান, মুন্সিগঞ্জ বিক্রমপুর সমিতির উপদেষ্টা জহিরুল ইসলাম, গাজীপুর জেলা সমাজ কল্যাণ সমিতির সভাপতি সোহরাব হোসেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সমিতির সাধারণ সম্পাদক শেখ মামুন, মুন্সীগঞ্জ বিক্রমপুর যুব সমিতির সভাপতি হাবিবুর রহমান নাজমুল, বাংলাদেশ সমিতি ইতালির দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ আলী ও প্রচার সম্পাদক হাবীব মোকদমসহ বিভিন্ন সামাজিক ও আঞ্চলিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

নবগঠিত গোপালগঞ্জ জেলা সমিতির সভাপতি হারুন সিকদার, সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান তালুকদার ও সিনিয়র সহ সভাপতি হেকমত আলী সুজন বলেন, গোপালগঞ্জ জেলা সমিতি রোমের কমিউনিটির জন্য কাজ করে যাবে, পাশাপাশি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কিভাবে জাতির জনক হয়ে উঠলেন তার ইতিহাস প্রবাসে বেড়ে উঠা প্রজন্মদের জানানোর জন্য বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করে যাবে।

প্রধান উপদেষ্টা মো. হাসান নবনির্বাচিত এই সমিতির পূর্ণাঙ্গ কার্যকরী পরিষদের নাম ঘোষণা করেন এবং উপস্থিত অতিথিদের সামনে পরিচয় করিয়ে দেন।

তিনি ঘোষণা করেন
উপদেষ্টা মামুন শরীফ, সুলতান আহমেদ মিনা, কাউছার হোসেন, মোফিজুর রহমান হাদী, মফিজ কাজী, মোস্তাক আহমেদ, হেলাল মোল্লা, সাহাবুদ্দিন হিটু, বাবর আলী, মনমোহন সিং, কফীর আহমেদ, মো. ইমাম হোসেন, রিপন, কাউছার হোসেন।

সহ-সভাপতি মো. ঈশা খান, মো. শাহজাহান শেখ, আসাদ সর্দার, জাহিদুল ইসলাম, কাজী মশিউর রহমান, গাজী ইমরান, মেহেদী হাসান সুমন, মোরাদ হাসান, শামীম ফকির, শফিকুল ইসলাম, এস কে তারেক। সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান তালুকদার, সহ-সাধারণ সম্পাদক শেখ তামজিদ, আযাদ সর্দার, রিজু শেখ, মো. আনিছুর রহমান, এস কে মতিন আহমেদ, মিজান হোসেন, কাজী রুবেল সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম; সহ-সংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম সোহাগ, ফায়েক কাজী মনির, কামরুল ইসলাম, রিপন, অসীম প্যাট্রিক, ফয়সাল আহম্মেদ, জিয়াউল হাসান জিয়া, কোষাধ্যক্ষ অহিদুল ইসলাম, সহ-কোষাধ্যক্ষ হুমায়ূন আহম্মেদ; দপ্তর সম্পাদক মোহব্বত বেপারী, সহ দপ্তর সম্পাদক জয়নাল হাসান, প্রচার সম্পাদক আবুল জব্বার সর্দার, সহ-প্রচার সম্পাদক মো. মামুন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক ফতেমা তুজ জোহরা, সহ সাংস্কৃতিক সম্পাদক সাবব্রিনা মৌ, বাবু বাঙাল, ক্রিয়া সম্পাদক মোল্লা ওবায়দুল, সহ ক্রীড়া সম্পাদক লিনা রওশন আরা, কাজী রিমা, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক শায়ল মোর্শেদা, সহ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক হিসাম সর্দার, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক খাদিজা ফারহা মুন্নি, শামিমা খানম।

আরো অন্যান্য নেতাকর্মীরা হলেন- শেখ রুবেল, রুপা সর্দার, নাজমা রহমান, সোমাইয়া আযাদ, খলিদ হোসেন মৃদুল, শেখ সেতু, মনির হোসেন, শেখ সোহাগ, স্বপন, সাব্বির হোসেন সেতু, আমিনুল ইসলাম রাসেল, মিজানুর রহমান, রাসেল খান, মো. রবিউল তালুকদার, হাদিউজ্জামান মাসুম, সম্মানিত সদস্যরা হলেন রবিউল ইসলাম, জাবেদ হোসেন, সৈকত ব্যাপারী।

শেষে গোপালগঞ্জ জেলা সমিতির সাংস্কৃতিক সম্পাদিকা ফাতেমা তোজ জহুরার সাবলীল পরিচালনায় সাংস্কৃতিক আয়োজনটি সকলে উপভোগ করেন। এই সাংস্কৃতিক আয়োজনে রোমের স্থানীয় শিল্পী বাবু বাঙাল গান পরিবেশন করেন।