একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নড়াইল-২ আসন থেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে জাতীয় ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার মনোনয়ন চূড়ান্ত বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। অর্থাৎ ওই আসনে নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করবেন মাশরাফি।

মঙ্গলবার (২০ নভেম্বর) দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা জানান তিনি। আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী ইতিমধ্যে চূড়ান্ত হয়ে গেছে এবং আগামী ২৫ নভেম্বরের মধ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে মনোনীত প্রার্থীদের নাম আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা দেয়া হবে বলেও জানান ওবায়দুল কাদের। নড়াইল-২ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলেন মোট ১৬ জন। পাশাপাশি ছিলেন ২০১৪ সালে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন জোটের প্রার্থী হিসেবে সংসদ সদস্য হওয়া ওয়ার্কার্স পার্টির শেখ হাফিজুর রহমানও। যদিও মাশরাফির মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার পর অনেকে আগেই ধারণা করতে পারছিলেন যে তাকেই মনোনয়ন দেয়া হচ্ছে। ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নড়াইল-২ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন মাশরাফি। তিনিই নৌকা নিয়ে লড়বেন।’

 

ওয়ার্কার্স পার্টির বর্তমান সংসদ সদস্যের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘ওখানকার বর্তমান সংসদ সদস্য ওয়ার্কার্স পার্টির ছিল। উনি এই আসনটি জোটের জন্য সেক্রিফাইস করেছেন।’ এদিকে, মাশরাফি ছাড়াও নড়াইল-২ আসনে আওয়ামী লীগের আরো যারা মনোনয়নপত্র কিনেছিলেন তারা হলেন- আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় যুব ও ক্রীড়া উপ-কমিটির সদস্য শিল্পপতি শেখ আমিনুর রহমান হিমু, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোস, সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন খান নিলু, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি স্বেচ্ছাসেবক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শেখ নূরুজ্জামান, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সৈয়দ আইয়ূব আলী, এসএম আসিফুর রহমান বাপ্পি, সাবেক সংসদ সদস্য এস কে আবু বাকের, শিল্পপতি বাসুদেব ব্যানার্জি, লোহাগড়া আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা লে. কর্নেল সৈয়দ হাসান ইকবাল, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য হাসানুজ্জামান, রাশিদুল বাসার ডলার, অ্যাডভোকেট শেখ তরিকুল ইসলাম, যুব মহিলা লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক শারমিন সুলতানা শর্মী, ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর আওয়ামী লীগ নেতা মুন্সী কামরুজ্জামান কাজল, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রনেতা হাবিবুর রহমান তাপস ও সুজন রহমান।

সময় টিভি