নিজস্ব প্রতিবেদক: বালুমহল ইজারা নিয়ে দেওয়ার নাম করে অর্থ আদায়, সরকারি কর্মচারীকে ভয়ভীতি প্রদর্শন ও সরকারি কাজে বাধা প্রদানের মামলা এবং মামলা তুলে নেয়ার জন্য বাদীদের ভয়ভীতি ও হুমকি দেওয়া অভিযোগে দিনাজপুর জেলা যুবলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক খলিলুল্লাহ আজাদ মিল্টনকে গ্রেপ্তার করেছে খানসামা থানা পুলিশ।

আজ শুক্রবার সকালে খানসামা থানায় প্রেস ব্রিফিংয়ে বিষয়টি নিশ্চিত করে অফিসার ইনচার্জ শেখ কামাল হোসেন বলেন, প্রতারক মিল্টন উপজেলার হোসেনপুর গ্রামের হাবিবুল্লাহ আজাদের ছেলে। তার বিরুদ্ধে সুস্পষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে খানসামা থানায় ৩টি মামলা ও প্যানাল কোডে ৩টি প্রসিকিউশনের পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে ঢাকার মোহাম্মদপুর থানা পুলিশের সহযোগিতায় মোহাম্মদপুরের একটি বাড়ি থেকে তাকে আটক করে পুলিশ।

ওসি শেখ কামাল হোসেন প্রেস ব্রিফিংয়ে আরো বলেন, খলিলুল্লাহ আজাদ মিল্টনের নামে থানায় বালুমহাল ইজারা নিয়ে দেওয়ার নাম করে অর্থ আদায় এবং একজন সোনালী ব্যাংক কর্মকর্তাকে ভয়ভীতি প্রদর্শন ও সরকারি কাজে বাধা প্রদানের অভিযোগে তিনটি মামলা রয়েছে। এছাড়াও মামলার বাদীদের মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি দেওয়ায় প্যানাল কোডে বিজ্ঞ আদালতে ৩টি প্রসিকিউশন রয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোরে ঢাকা মোহাম্মদপুর থেকে আটকের পরে বৃহস্পতিবার রাতে দিনাজপুর শহরের রামনগরের তাঁর নিজ বাসা থেকে কাগজ পত্র বিহীন একটি প্রাইভেট কার জব্দ করে কোতোয়ালি থানায় মামলা রুজু করা হয়। শুক্রবার তাঁকে আদালতে প্রেরণ করা হয়।