মোঃ নুরনবী ইসলাম, নিজস্ব প্রতিবেদক

দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার পাকেরহাটে আবার ভটভটি ও মোটরসাইকেল সংর্ঘষে মিম ইসলাম (৮) নামে মোটরসাইকেল আরোহী দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় নিহত মিমের বাবা মোটর সাইকেল চালক ইসাহাক আলী গোলাপ শাহ (৪৫) ও তাঁর মা জাকিয়া বেগম (৪০) আহত হয়েছেন। নিহত মিম উপজেলার আংগারপাড়া ইউনিয়নের বাংলাবাজার এলাকার কাপড় ব্যবসায়ী গোলাপ শাহ এর বড় ছেলে ও বাংলা বাজার নূরানী কিন্ডারগার্টেনের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র।

এর আগেও গত চার মাসে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে সড়ক দূর্ঘটনায় উত্তরা ইপিজেড কর্মী ও কলেজ ছাত্রসহ ৫ জন নিহতের ঘটনা ঘটেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার পাকেরহাট থেকে রাণীরবন্দর সড়কে পান ধোয়ার ঘাটে লাইসেন্স বিহীন একটি ভটভটির সাথে মোটরসাইকেলের সংঘর্ঘ হয়। এতে মোটরসাইকেলের সামনে বসা নিহত মিম মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায়। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে পাকেরহাট হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মিমকে মৃত ঘোষণা করে ও আহত দুজন ঐ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে ওসি শেখ কামাল হোসেন জানান, পরিবারের কোন আপত্তি না থাকায় লাশ পরিবারের মাঝে হস্তান্তর করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, অনিবন্ধিত যানবাহন ও অদক্ষ চালকের বিরুদ্ধে অভিযান চলমান রয়েছে। এটি অব্যাহত থাকবে।