মোঃ নুরনবী ইসলাম, নিজস্ব প্রতিবেদক

দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার গোয়ালডিহি ইউনিয়ন পরিষদের ৯ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মানিক চন্দ্র রায়ের বিরুদ্ধে হতদরিদ্র কর্মসংস্থান কর্মসূচির শ্রমিকদের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় শ্রমিকদের টাকা আত্মসাতকারী ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করার জন্য হতদরিদ্র কর্মসংস্থান কর্মসূচির ভুক্তভোগী ৯ জন শ্রমিক উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর অভিযোগ করেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গোয়ালডিহি ইউনিয়ন পরিষদের ৯ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সামসুল আলমের মৃত্যুর পর উপনির্বাচনে মানিক চন্দ্র রায় নির্বাচিত হয়। এরপর তিনি দায়িত্ব গ্রহন করার পর আগের ইউপি সদস্য মরহুম সামসুল আলমের কর্মী ও একই পাড়ায় বাড়ি হওয়ায় অভিযোগকারী শ্রমিকদের কাজে যোগদান করতে দেয় নি। এমনকি তারা বদলী শ্রমিক দিতে চাইলেও তিনি বাধা করেন। তবে ইউপি সদস্য মানিক চন্দ্র রায় অভিযোগকারী ৯ শ্রমিকের এযাবত ৩০ দিনের বরাদ্দকৃত টাকা তাদের স্বাক্ষর জাল করে ব্যাংক থেকে উত্তোলন করে আত্মসাত করে আসতেছে।

ভুক্তভোগী শ্রমিকরা জানান, আমাদের বরাদ্দকৃত টাকা হয় আমাদের দিতে হবে নতুবা সেই টাকা সরকারী কোষাগারে জমা দিতে হবে। এছাড়াও টাকা আত্মসাতকারী মানিক মেম্বারের শাস্তি দাবি করেন শ্রমিকরা।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গোয়ালডিহি ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের কর্মসংস্থান কর্মসূচির সর্দার সফিকুল ইসলাম বলেন, অভিযোগকারী শ্রমিকদের মানিক মেম্বার কাজে যোগ দিতে দেয় নি। আর তাদের পরিবর্তে কোন নতুন করে শ্রমিকও নেয়া হয় নি। এমনকি মেম্বার বিল উত্তোলনে কারো স্বাক্ষরই নেয় না। তিনিই সবার স্বাক্ষর করে দিয়ে ব্যাংক থেকে টাকা তুলে নিয়ে এসে শ্রমিকদের দেন।

তবে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য মানিক চন্দ্র রায় শ্রমিকদের টাকা আত্মসাতের বিষয়টি অস্বীকার করেন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহমেদ মাহবুব-উল-ইসলাম বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে। তদন্ত শেষে দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।