মোঃ নুরনবী ইসলাম, নিজস্ব প্রতিবেদক

উপার্জনের একমাত্র সম্বল হারিয়ে বুকফাটা আর্তনাদে কষ্টে দিন কাটানো দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার বাসিন্দা দেলোয়ার হোসেনকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহমেদ মাহবুব-উল-ইসলামের মানবিকতায় পেল তাঁর উপার্জনের একমাত্র সম্বল ভ্যানগাড়ি। এতে ভ্যানচালক দেলেয়ারের পরিবারে স্বস্তির দেখা মিলেছে। তার বাড়ি উপজেলার ভাবকী ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের। সম্প্রতি তাঁর ভ্যানগাড়ি চুরি হয়ে যায়।

সোমবার বিকেলে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দেলোয়ার হোসেনকে ভ্যান প্রদান করেন ইউএনও আহমেদ মাহবুব-উল-ইসলাম। এসময় উপস্থিত ছিলেন ভাবকী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম।

ভ্যান পেয়ে দেলোয়ার ইসলাম (৪০) আবেগাপ্লুত কন্ঠে বলেন, ভ্যানটি আমার পরিবারের একমাত্র উপার্জনের মাধ্যম ছিল। ভ্যান চালিয়ে যা উপার্জন হত তা দিয়ে স্ত্রী, ২ ছেলে ও প্রতিবন্ধী একটি মেয়ের ভরনপোষণ সহ সংসার চালাতাম। কিন্তু মাস খানেক আগে উপার্জনের একমাত্র অবলম্বন ভ্যান গাড়িটি হারিয়ে যাওয়ায় সংসার চালাতে হিমসিম খেতে হচ্ছে। পরে ভাবকি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সফিকুল ইসলামের সাথে ইউএনও স্যারের সাথে দেখা করে বিষয়টি জানালে তিনি আশ্বাস দেন। আজ সেটি হাতে পেলাম এখন আমি ও আমার পরিবার অনেক খুশি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহমেদ মাহবুব-উল-ইসলাম বলেন, রোজগারের একমাত্র অবলম্বন হারানো দেলোয়ার হোসেনের নতুনভাবে সংগ্রাম শুরুর পথে একটু সাহস যোগানোর চেষ্টা করেছি মাত্র। এরকম পরিবারের পাশে সরকারের পাশাপাশি বিত্তবানদেরও এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি।