মোঃ নুরনবী ইসলাম, নিজস্ব প্রতিবেদক

দিনাজপুরের খানসামা উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি ও আংগারপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ধীমান দাস হামলার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার বিকেলে উপজেলার হিন্দু পরিবারের সন্তানদের ব্যানারে খানসামা উপজেলা প্রেসক্লাব কনফারেন্স রুমে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সুশান্ত মহন্ত ও চন্দ্রদ্বীপ কাওয়ালী। তারা বলেন, আমরা ২০০০ সাল থেকে দেখে আসতেছি রেজাউল করিম ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। প্রথমে তিনি ইন্টারমেডিয়েট শাখার সহ-সভাপতি নির্বাচিত হন। এরপর তিনি যথাক্রমে পাকেরহাট সরকারী কলেজের সাধারণ সম্পাদক, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সর্বশেষ উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়কের দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমানে তিনি উপজেলা যুবলীগের সদস্য ও আংগারপাড়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দায়িত্ব পালন করছেন।

তারা আরো বলেন, সম্প্রতি উপজেলায় আওয়ামী লীগ নেতা ধীমান দাস ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রেজাউল করিমসহ ছাত্রলীগ ও মৎস্যজীবী লীগের নেতাদের মধ্যে যে দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয়েছে এতে ধীমান দাস স্বার্থ চরিতার্থ করার জন্য হিন্দু সম্প্রদায়কে জড়ানোর চেষ্টা করতেছে। এখানে হিন্দু সম্প্রদায়ের কেউ জড়িত নয়। তাই আমরা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন নৃপেন রায়, নকুল ঘোষাল, বিজয় শংকর রায়, নিখিল সরকার সহ আরো অনেকে।