নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকারে লন্ডন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমানের যুক্ত হওয়াটা ‘আচরণবিধির লঙ্ঘন নয়’ বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। সেজন্য এ ব্যাপারে ইসিরও কিছু করার নেই বলে জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

সোমবার (১৯ নভেম্বর) নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ কমিশনের সভা শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে এ কথা জানান।

রোববার (১৮ নভেম্বর) বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার শুরু হয়েছে। গুলশানে দলের চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে স্থায়ী কমিটির সদস্যরা এ সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন। লন্ডন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে এই সাক্ষাৎকার প্রক্রিয়ায় যুক্ত রয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান। তবে তারেক দণ্ডিত ও পলাতক আসামি হওয়ায় ভোট প্রক্রিয়ায় তার যুক্ত হওয়া নিয়ে ইসিতে রোববারই নালিশ করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

এ বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে ইসি সচিব বলেন, ক্ষমতাসীন দলের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সভায় বসে পর্যালোচনা করে নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত দিয়েছেন যে, যেহেতু তারেক রহমান দেশের বাইরে এবং অনলাইনে সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন, সেহেতু এটা নির্বাচনী আচরণবিধির লঙ্ঘন নয়। নির্বাচন কমিশনের এ বিষয়ে করণীয় কিছু নেই।

লন্ডনে রাজনৈতিক আশ্রয়ে থাকা তারেকের বক্তব্য প্রচারে আদালতের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। বিষয়টি মনে করিয়ে দিয়ে হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, তারেকের বিষয়ে হাইকোর্টের একটি নির্দেশনা রয়েছে। এটা সবাইকে মানতে হবে।

নয়াপল্টনে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে সহিংসতার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে ইসি সচিব বলেন, নয়াপল্টনে ফৌজদারি অপরাধ হয়েছে, এ বিষয়ে তদন্ত চলবে। আর নিরপরাধ কেউ যেন হয়রানির শিকার না হয়, সেজন্য আইজিপিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ইসি ঘোসিত তফসিল অনুযায়ী, আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বিগত ২০১৪ সালের নির্বাচন বর্জন করলেও এবার ভোটে অংশ নিচ্ছে বিএনপি।

বাংলা নিউজ।