আইনজীবী তালিকাভুক্তির জন্য বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের মৌখিক পরীক্ষা (ভাইভা) আগামী ১ নভেম্বর থেকে শুরু হবে।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ওয়েবসাইটে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন প্রকাশ করা হয়েছে।

চলতি বছরের ৪ জুন আইনজীবী তালিকাভুক্তির লিখিত পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয়। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয় মোট আট হাজার ১৩০ জন পরীক্ষার্থী। এছাড়া ২০৮ জন পরীক্ষার্থীর ফলাফল স্থগিত রাখা হয়। গত ১৫ অক্টোবর ২০৮ জনের ফলাফল প্রকাশ করা হয। এরমধ্যে ১২৬ জন পরীক্ষার্থী পাস করে। মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণের পর আইনজীবী তালিকাভুক্তির চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা করা হবে। তখন উত্তীর্ণরা সংশ্লিষ্ট জেলা আদালতে আইনজীবী হিসেবে কাজ করতে পারবেন।

গত বছরের ১৪ অক্টোবর লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে গত বছরের ২১ জুলাই এমসিকিউ (নৈর্ব্যক্তিক প্রশ্ন) পরীক্ষায় প্রায় ৩৪ হাজার ২০০ জন অংশ নিয়েছিলেন। পরদিন ২২ জুলাই দেয়া ফলাফলে এমসিকিউ (নৈর্ব্যক্তিক প্রশ্ন) পরীক্ষায় মোট ১১ হাজার ৮৪৬ জন উত্তীর্ণ হয়েছিলেন। পরে তারা লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন।

নোটিশে বলা হয়, বার কাউন্সিল বিধি ৬০বি অনুযায়ী সর্বশেষ অনুষ্ঠিত দুইটি এনরোলমেন্ট মৌখিক পরীক্ষায় অনুত্তীর্ণ হয়েছেন/অংশগ্রহণ করতে ব্যর্থ হয়েছেন তারা পাঁচশ টাকা ফরম ফি এবং এক হাজার টাকা পরীক্ষা ফি দিয়ে মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন। তাদের তিন কপি পাসপোর্ট সাইজের সত্যায়িত ছবি এবং সর্বশেষ পরীক্ষার প্রবেশপত্রের সত্যায়িত ফটোকপিসহ ৮ নভেম্বরের মধ্যে নির্ধারিত আবেদন ফরমে আবেদন করতে হবে। তাদের মৌখিক পরীক্ষার প্রবেশপত্র ১৮ নভেম্বর বার কাউন্সিল কার্যালয় হতে অফিস সময়ে বিতরণ করা হবে।

সূত্র: ঢাকা টাইমস।