বাঙালিয়ান ডেক্স:

নিজস্ব প্রতিবেদক:

কুয়েতের এক মাত্র নারী এমপি সাফা আল-হাশেম দাবি তুলেছেন, দেশটিতে থাকা প্রবাসীরা নিঃশ্বাসের সঙ্গে যে বাতাস গ্রহণ করে তার ওপরও ট্যাক্স বসাতে হবে!আর তা কার্যকর হলে, নিঃশ্বাস নিতেও কর দিতে হবে দেশটিতে থাকা প্রায় দুই লক্ষ বাংলাদেশিদের।

য সাফা আল-হাশেম বলেন, ‘প্রবাসীদের কাছ থেকে সবকিছুর জন্যই টাকা আদায় করা উচিত। স্বাস্থ্য সেবা থেকে শুরু করে অবকাঠামো ব্যবহার এবং, আমি আবারো বলছি, তারা যে বাতাস নিঃশ্বাস হিসেবে গ্রহণ করে তার জন্যও তাদের কাছ থেকে টাকা আদায় করা উচিত।’

কুয়েত সরকার সম্প্রতি একটি উন্নয়ন পরিকল্পনার অংশ হিসেবে কুয়েতি নাগরিকদের ওপর নতুন করারোপ করার প্রস্তাব করেছে। কিন্তু এই নারী আইনপ্রণেতা সে প্রস্তাবের বিরোধীতা করছেন। তিনি বলেন, ‘কুয়েতি নাগরিকদের ওপর নতুন কোনো করারোপ করতে হলে তা আমার মৃতদেহের ওপর করতে হবে।’

সম্প্রতি কুয়েতের জাতীয় সংসদ সেদেশের বেকার নাগরিকদের কর্মসংস্থানের জন্য একটি কমিটি গঠন করে। কমিটিকে বলা হয় দরকার হলে প্রবাসীদের ছাটাই করে কুয়েতি নাগরিকদের জন্য চাকরির ব্যবস্থা করতে হবে। ওই কমিটির এক বৈঠক শেষে সাফা এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, যতক্ষণ পর্যন্ত কুয়েত থেকে অতিরিক্ত সংখ্যক প্রবাসীদের বিতাড়ন না করা হচ্ছে ততক্ষণ কুয়েতি নাগরিকদের ওপর কোনো করারোপ করা যাবে না। যেখানে কুয়েতি নাগরিকের সংখ্যা মাত্র ১৪ লাখ, সেখানে প্রবাসী আছে ৩২ লাখ।

তিনি বলেন, সরকারকে সবার আগে যে ১৪ হাজার কুয়েতি নাগরিক বেকার আছেন তাদের জন্য কর্মসংস্থান সৃ্ষ্টি করতে হবে। আর যে ১ লাখ ১০ হাজার নিরক্ষর প্রবাসী আছে, সেই সমস্যাটির সমাধান করতে হবে। সবার আগে প্রশ্ন করতে হবে, ‘এই নিরক্ষর প্রবাসী শ্রমিকদের আদৌ কোনো দরকার আছে কিনা আমাদের?’ সূত্র: কুয়েত টাইমস