২১ অক্টোবর ২০১৮,

নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন চলাকালে উসকানির অভিযোগে এক মামলায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন চট্টগ্রামের আদালত।

রবিবার দুপুরে বিএনপি নেতা মহানগর দায়রা জজ আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন। আদালত জামিন নাকচ করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে আমীর খসরুর আইনজীবী মফিজুল হক ভূঁইয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘আমরা এ আদেশের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করবো।’

মামলার বাদী জাকারিয়া দস্তগীর দাবি করেন, আমীর খসরুর উসকানির জেরে নিরাপদ সড়কের আন্দোলনে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়। তার কথার জেরেই ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে হামলা হয়।

গত ২৯ জুলাই রাজধানীর কুর্মিটোলায় বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী দিয়া খানম মিম ও আবদুল করিম রাজিব নিহত হন। এ ঘটনার পর নিরাপদ সড়কের দাবিতে রাস্তায় নেমে আসেন বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলন চলাকালীন আমীর খসরুর মাহমুদ চৌধুরীর সঙ্গে কুমিল্লায় অবস্থানরত নওমী নামে এক ছাত্রদল কর্মীর কথোপকথনের অডিও ক্লিপ ফাঁস হয়। ওই অডিওতে আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী কুমিল্লার নওমি নামের একজনের সঙ্গে কথা বলেন। আমীর খসরু তাকে ঢাকায় শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে লোকজন নামানোর জন্য নওমিকে নির্দেশ দেন।

তবে ভাইরাল হওয়া ওই অডিও কথোপকথনটি বিএনপি নেতা আমীর খসরুর কণ্ঠ বলা হলেও বিএনপি নেতা এটিকে বানোয়াট বলে দাবি করেন।

সূত্র ঢাকা টা ই মস