দেশের সকল বেসরকারি ব্যাংকের তথ্য পেতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের দারস্থ হতে হবে না মন্ত্রণালয়কে। এখন থেকে ব্যাংকের সরাসরি তথ্য চাইতে পারবে মন্ত্রণালয়।

সম্পতি বাংলাদেশ ব্যাংকের ‘ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ’ এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে এবং সব তফসিলি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহীদের কাছে প্রজ্ঞাপন পাঠিয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, এতদিন কোনো ব্যাংকের তথ্য প্রয়োজন হলে মন্ত্রণালয় বাংলাদেশ ব্যাংকে আবেদনের মাধ্যমে তা সংগ্রহ করতো। তবে তথ্য অধিকার আইন অনুযায়ী মন্ত্রণালয় এখন সরাসরি ব্যাংকের প্রয়োজনীয় তথ্য চাইতে পারবে। একই সঙ্গে ব্যাংক সেই তথ্য দিতে বাধ্য থাকবে। তবে গোপনীয় নয় এমন তথ্যই দিতে পারবে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, চলতি বছরের ২ অক্টোবর তথ্য মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। ১৯ অক্টোবর প্রজ্ঞাপনটি বাংলাদেশ গেজেটের অতিরিক্ত সংখ্যায় প্রকাশিত হয়েছে।

গেজেটে বলা হয়েছে, ব্যাংক কোম্পানি আইন, ১৯৯১, আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইন, ১৯৯৩ এবং কোম্পানি আইন, ১৯৯৪ এর আলোকে বেসরকারি ব্যাংকসমূহ তথ্য অধিকার আইন, ২০০৯ এর ২ (খ) (ই) দফা মোতাবেক ‘কর্তৃপক্ষ’ হিসাবে বিবেচিত, সেহেতু তথ্য অধিকার আইন, ২০০৯ এর ২ (খ) (ঞ) দফায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে সরকার বেসরকারি ব্যাংকসমূহকে এতদ্বারা কর্তৃপক্ষ হিসেবে নির্ধারণ করল।